ব্রণ সমস্যার কারন এবং প্রতিকার

ব্রণ একটি সাধারণ চামড়া সমস্যা যা সব বয়সের মানুষের হয়ে থাকে। এর মধ্যে কিশোর বা কিশোরীরা সব চেয়ে বেশি ভুগে থাকেন, কারন এ সময় শরীরে হরমোনের পরিবর্তন ঘটে।  

ঘুম বজায় রাখা, অত্যধিক চাপ, অস্বাস্থ্যকর খাওয়ার অভ্যাস এবং একটি তীব্র জীবনযাত্রায় ব্রণ হতে পারে। ব্রণ মুখ, বুকে, পিঠ এবং মাথার উপর প্রদর্শিত হতে পারে। যদিও এর কোন নির্দিষ্ট প্রতিকার নেই, তবুও আপনার ঘরে থাকা সাধারণ উপাদানগুলি ব্যবহার করে খুব সহজেই এবং প্রাকৃতিকভাবে সমস্যাটি রোধ বা কমিয়ে আনা সম্ভব।

ঘরে বসে খুব সহজেই নিম্নোক্ত উপাদানগুলি ব্যবহার করে ব্রণ থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে।  

acne causes, acne treatment, acne tips

১. বেকিং সোডা

বেকিং সোডা বা সোডিয়াম বাইকারবনেট আপনার ত্বক এর জন্য অনেক উপকারি। এটি মৃত চামড়া অপসারণ করে ত্বককে ব্রণ সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। এটি ত্বকে পিএইচ ভারসাম্যকে নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করে এবং এর হালকা এন্টি-প্রদাহ এবং এন্টিসেপটিক প্রোপার্টি আপনার ত্বক পরিষ্কার করে সাহায্য করে।

এক বা দুই চা চামচ বেকিং সোডা এর সাথে একটু জল মিশ্রিত করুন। কয়েক মিনিট পরে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এছাড়াও আপনি দুই চামচ বেকিং সোডার সাথে এক চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া, অর্ধেক লেবু রস, এবং পাঁচ টেবিল চামচ মধু মিশ্রিত করতে পারেন। এটি আপনার মুখের উপর প্রয়োগ করুন এবং পাঁচ মিনিটের পরে ধুয়ে নিন।

সপ্তাহে একবার বা দুইবার আপনার ত্বকে বেকিং সোডা ব্যবহার করুন ভাল ফলাফলের জন্য।


acne causes, acne treatment, acne tips

২. লেবুর রস

লেবুর এসিডীয় উপাদান খূব উপকারী ব্রণ সমস্যা সমাধানের জন্য। লেবু ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করে যাতে করে ত্বকে ব্রণ উঠতে ণা পারে। আপনি প্রতিদিন আপনার ত্বকে এটি ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু আপনার ত্বক যদি খুব শুষ্ক হয় তবে সপ্তাহে দুই বা তিন দিন ব্যবহার করুন।

লেবু একটি টুকরা আপনার মুখে ঘষুন। কয়েক ঘন্টা অপেক্ষা করুন এবং পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

এছাড়াও লেবুর রস এর সাথে আপনি গোলাপ জল সম পরিমাণে মিশ্রিত করতে পারেন এবং এভাবে রেখে দিন আধা ঘণ্টা। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মূখ ধুয়ে নিন।

acne causes, acne treatment, acne tips


৩. টুথপেস্ট

টুথপেস্ট যা আপনি নিয়মিত ব্যবহার করেন আপনার দাঁত পরিষ্কার করার জন্য। কিন্তু অনেকেই হয়তো আপনারা এটা জানেন না যে এটি ব্রণ সমস্যা দূর করতে আপনাকে সাহায্য করবে। ঘুমানোর আগে ব্রণে অল্প পরিমাণে টুথপেস্ট লাগিয়ে নিন । এভাবে প্রতিদিন টুথপেস্ট ব্যবহারে আপনি ব্রণ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।
acne causes, acne treatment, acne tips

৪. বরফ

অনেক মানুষ খুব অল্পতেই ভয় পেয়ে যান ব্রণ সমস্যা নিয়ে। তারা বিভিন্ন কেমিক্যাল ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু তারা জানেন না যে আমাদের ফ্রিজে থাকা খুব সামান্য একটি জিনিস আপনার এই ব্রণ সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে। বরফ বা বরফের টুকরা আপনার ত্বকে নিয়মিত ব্যবহারে- আপনার ত্বক কে করবে মসৃণ করবে এবং সেই সাথে ব্রণ ব্রণ সমস্যা থেকে দিবে পরিত্রাণ।

কয়েকটি গবেষণায় দেখানো হয়েছে যে, ত্বকে বরফ প্রয়োগের ফলে ব্রণ হ্রাস পায়।

 acne causes, acne treatment, acne tips

৫. চিন্তা মুক্ত থাকুন

দুশ্চিন্তা ব্রণ সমস্যার একটি প্রধান কারণ। যখন আমরা কোন কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তা করি, তখন তা আমাদের শরীরের উপর প্রভাব ফেলে। যার কারনে আমরা ব্রণ সমস্যার মুখোমুখি হই। আমারা যতটা দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকবো, ব্রণ থেকে ততই পরিত্রাণ পাবো।

৬. ফাস্ট ফুড

ফাস্ট ফুড যত না আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর, ততটা আমাদের ত্বকের জন্যও ক্ষতিকর। ফাস্ট ফুড খেলে আমদের ত্বক এ নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে- ত্বকে ব্রণ, তৈলাক্ত ত্বক, মেছতা ইত্যাদি।

acne causes, acne treatment, acne tips

৭. চকোলেট

সব বয়সের মানুষেরা কম বেশী চকোলেট পছন্দ করে থাকি এবং অনেকেই তা প্রচুর পরিমাণে খেয়ে থাকি। কিন্তু এই চকোলেট আমাদের শুধু দাঁতের ক্ষতি করে না বরং ত্বকেও ব্রণ এর সৃষ্টি করে। তাই ব্রণ থেকে মুক্তি পেতে চকোলেট খাওয়া কমিয়ে দেয়া উচিৎ।

acne causes, acne treatment, acne tips

৮. হাত না দেয়া

আমাদের অনেকেরই অভ্যাস আছে ব্রণ হলে তা হাত দিয়ে ধরা বা খোটা, যা ব্রণ সমস্যা কে আরও বাড়িয়ে তোলে। তাই ব্রণ হলে আমদের হাত দেয়া উচিৎ না।

acne causes, acne treatment, acne tips

উপরোক্ত ঘরোয়া প্রতিকারগুলি নিয়মিত পালন করলে ব্রণ সমস্যার কারণ যে গুলো বর্ননা করা হয়েছে টা থেকে আমরা মুক্ত হতে পারি ।

কি করলে আমারা আমাদের পোস্ট আরও ভাল করতে পারি এই বিষয়ে অবশ্যই মতামত প্রকাশ করবেন।

আরও কি টাইপের পোস্ট বা ক্যটাগরি আমরা যুক্ত করতে পারি এই বিষয়ে যদি মতামত থাকে তাও ব্যাক্ত করার অনুরোধ রইল।

ধন্যবাদ।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *