ব্রা সঠিক মাপের না পরলে কি হয়? ঝুঁকি এরাতে মেনে চলুন সঠিক পদ্ধতি?

ব্রা পরার সঠিক ও ভুল পদ্ধতি

ব্রা পরার সঠিক উপয় জানে রাখা সব মেয়ের জন্য খুবি জরুরি। কিছু পোশাক, যেমন ক্যামিসোল, ট্যাংক টপ এবং পশ্চাতবিহীন পোশাকে সন্নিবেশিত স্তন সমর্থনের ব্যবস্থা রয়েছে, যা আলাদা বক্ষবন্ধনী পরিধানের প্রয়োজনীয়তা লাঘব করে।

স্তন সমর্থনের প্রাথমিক বৈশিষ্ট্য ছাড়িয়ে সাংস্কৃতিক বিশেষ ইঙ্গিতপূর্ণ দিক থেকে বক্ষবন্ধনী নারীত্বের আইকন বা প্রতীক হয়ে ওঠে। কিছু নারীবাদী, নারীদেহের অবদমীত কামনা-বাসনার প্রতীক হিসেবেও বক্ষবন্ধনী বিবেচনা করেন।

সঠিক মাপের ব্রা না পরলে কি হয়?

ব্রা – shusthodeho.net

রাতে ঘুমানোর আগে ব্রা পরা কি আসলে উচিত?
আপনার স্তন জন্য উপযুক্ত স্থান হল আপনার এবং আপনার কাঁধ ছেঁড়াখোঁড়া মধ্যে মাঝপথে. এবং আপনার ব্রা স্তর সামনে ব্যাক করা উচিত। মহিলারা তাদের ব্রা ব্যান্ড উচ্চ torsos তাদের উপর খুব পরেন এবং তাদের পরিমাপ বিমুক্ত করা. “বেশীর ভাগ মহিলারাই পিঠ রাখা ঊর্ধ্বগামী [বৃদ্ধি তাদের ব্যান্ড আকার] পরিবর্তে একটি গভীর কাপ পেতে,” . “আমরা ফিরে চর্বিহীন এবং ছোট রাখতে চান যাতে আমরা আবক্ষ উত্তোলন করতে পারেন. [কাঁচুলি ব্যান্ড হয়] ভালো একটি সেতু-যদি সঠিকভাবে বেস এর নিবদ্ধ, তা উত্তোলন করতে পারেন.”

সঠিক ব্রা বেছে নিতে মনে রাখুন নিয়মটি
আপনার কাঁচুলি তার আকৃতি এবং সমর্থন রাখা জন্য অর্ডার ইন, সুসান বলেন যে আপনার সারা সপ্তাহ Bras পরিবর্তন করা উচিত. “আমি সবসময় বলে একটি বক্ষবন্ধনী বাকি একটি দিন প্রয়োজন,” সে বলল. “আপনি একই কাঁচুলি একটি সারিতে দুই দিন, কারণ আপনি সমর্থন ইলাস্টিক খত্তয়া এবং এটি সংশ্লিষ্ট মেমরি খোঁজার প্রয়োজন নেই করব পরেন না থাকা উচিত.”

সুস্পষ্ট সংকেত সনাক্ত করুন আপনার ব্রা ভুল মাপ আছে

যদি আপনার কাপ runneth তখন অনেক সময় এক কাপ আকার ওঠো.

যদি আপনার কাপ টোল, এটা সময় এক কাপ আকার নিচে যান.

আপনি যদি dreaded ফিরে চর্বি আছে, সম্ভবত আপনি কি মনে করেন আপনার বক্ষবন্ধনী হয় খুব টাইট, কিন্তু আপনি ভুল-আপনার ব্রেসিয়ার অত্যন্ত বড়. আপনার আবার একটি ছোট ব্যান্ডের সঙ্গে আকার বক্ষবন্ধনী পরা নিম্ন সম্পূর্ণভাবে ফিরে চর্বি নিষ্কাশন করা হবে।

যদি আপনার চাবুক নিচে পড়ে, তার মানে বক্ষবন্ধনী আপনার ব্যান্ড আপ রাইডিং হয় এবং আপনি সম্ভবত একটি ব্যান্ড আকার যান নিচে প্রয়োজন.

বক্ষবন্ধনী এর ক্লিপ আটকানোতেই ফাঁস হবে ব্যক্তিত্ব

"<yoastmark

আপনি কীভাবে লাগান আপনার ব্রা এর স্ট্র্যাপ? এই প্রশ্নের উত্তর বাতলে দিতে পারে আপনার ব্যক্তিত্বের গোপন কথা। শুনে নিশ্চয়ই খানিকটা অবাক লাগছে? অবাক লাগারই কথা। কিন্তু কথাটা একেবারে সত্যি। আপনার ব্রার স্ট্র্যাপ আপনি সামনের দিকে আটকান নাকি পিছনের দিকে, পরার সময় ক্লিপ আটকে পরেন নাকি মাথা দিয়ে গলিয়ে তার উপর নির্ভর করছে আপনার ব্যক্তিত্বের পরিচয়।

বক্ষবন্ধনী
কিন্তু কীভাবে জানবেন আপনার ব্রা তে লুকনো আপনার ব্যক্তিত্বের গোপন কথা? জেনে নিন, কোন ধরণের অন্তর্বাসে লুকিয়ে আছে কোন কথা।

পিছনে ক্লিপ আটকানো
আপনার ব্রা এর ক্লিপ যদি পিছনের দিকে হয়, এবং আপনি যদি সামনে থেকে টেনে পিছনের দিকে ক্লিপ আটকান তার মানে হল আপনি সাধারণত বন্ধুবৎসল, মিশুকে স্বভাবের, আপনি সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে দেন, চিন্তাশক্তি ব্যবহার করে কাজ করেন। তবে আপনি একেবারে কড়া অনুশাসন পছন্দ করেন, ঐতিহ্যকে আঁকড়ে পড়ে আছেন, আপনি মিথ্যা কথা বলা অপছন্দ করেন।

সামনে ক্লিপ
আটকানো ব্রা তে ক্লিপ সামনের দিকে হলে তা পরা সোজা হয়ে যায়। এই ধরণের অন্তর্বাস য়ারা পরেন তারা সময় নষ্ট করা অপছন্দ করেন। ঝটপট কাজ করেন, এবং খোলা মনের ও আধুনিক চিন্তাধারার হন।

পিছনের ক্লিপ সামনে করে আটকে নেওয়া
অনেকে আছেন, যাঁরা কাজ সহজ করার জন্য, প্রথমে অন্তর্বাসের পিছনের দিক যেখানে ক্লিপটা আছে তা সামনের দিকে নিয়ে আসেন। তারপর তা আটকে নিয়ে পিছনের দিকে ঘুরিয়ে নেন। তারা প্রতিভাবান, ক্যারিশমা আছে, নতুন নতুন জিনিস শিখতে ও পরীক্ষা নিরিক্ষা করতে ভালবাসেন। তবে এই ধরণের মহিলারা অতি সহজেই বিরক্ত হয়ে যান।

আগে ক্লিপ লাগিয়ে মাথা দিয়ে গলিয়ে পরে নেন ব্রা 
যে সব মহিলাদের এই অভ্যাসটি রয়েছে তারা যে কোনও কাজে ভীষণ খুঁতখুঁতে হন, যে কোনও জিনিস ও ব্যক্তি নিয়ে অত্যন্ত যত্নবান হন, মাঝে মাঝে অবসর সময়ে অলস সময় কাটানো পছন্দ করেন।

যারা ব্রা / অন্তর্বাস ক্ষতিকর বলে মনে করেন
সংখ্যায় কম হলেও এমন বহু মহিলা রয়েছেন যাঁরা অন্তর্বাস বা ব্রেসিয়ারকে ক্ষতিকর বলে মনে করেন। এঁরা মূলত স্বাধীনচেতা মনের হন। নিজের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ কখনওই বরদাস্ত করেন না। অফিস হোক বা বাড়ি সবজায়গাতেই তিনি রাজত্ব করতে চান।

ব্রা এর সঠিক কাপ সাইজ কিভাবে পরীক্ষা করবেন?

ব্রার সঠিক কাপ সাইজ কিভাবে পরীক্ষা করবেন?

ব্রা – shusthodeho.net

আমাদের দেশের মেয়েরা প্রায়শ ভুল সাইজের ব্রা পরিধান করে । ফলে ক্যান্সার সহ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত হয়। কিন্তু সঠিক মাপের ব্রা পরিধান করলে অনেক সমস্যা থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব। কিভাবে স্তন এবং ব্রার কাপ সাইজের সঠিক মাপ নির্ধারণ করা যায় তা নিয়ে আজ আলোচনা করব।

লক্ষ্য রাখবেন, ব্রা কাপের নিচের শক্ত তস যেন সমান্তরালে বুকের পাঁজরের উপর বিছানোর মত থাকে। পাশ থেকেও লক্ষ করুন নিচের তার যেন পাঁজরের হাড়ের উপর থাকে – কোন মতেই তা স্তনের নরম টিস্যুর উপর না থাকে। যদি পাশ থেকে তা আপনার স্তন এর উপর চলে এসেছে দেখেন তাহলে বুঝতে হবে আপনার বড় কাপ সাইজ লাগবে।

যদি নিচের তার/বক্রম ব্যথাযুক্ত ভাবে স্তনের মাঝামাঝি অংশে চাপ দিচ্ছে – তাহলে হয়তো আপনার ছোট কাপ সাইজের ব্রা লাগবে।

সঠিক ব্রা বেছে নিতে মনে রাখুন ৭টি নিয়ম

ব্রা – shusthodeho.net

সঠিক কাপ সাইজ ব্যবহার করলে আপনার স্তনের চামড়ায় কোন প্রকার বলিরেখা/কুঞ্চিত দাগ পড়বে না। কিন্তু যে কোন প্রকার ছাপ দেখলে ধরে নেবেন কাপ সাইজ অনেক ছোট – এমনকি পুশ-আপ ব্রা এর ক্ষেত্রেও।

আয়নার সামনে স্তনের চারপাশ কোন প্রকার bulging দেখা যায় কিনা পরীক্ষা করুন। শুধু সামনে নয় এমনকি বাহুর নিচে এবং পিঠেও কোন দাগ পড়েছে কিনা দেখুন।

যদি আপনার মনে হয় আপনার কাপ সাইজ খুব ছোট কিন্তু আপনি নিশ্চিত নন – তাহলে পুনরায় পরীক্ষার জন্য বড় কাপ সাইজের ব্রা পরিধান করে দেখতে পারেন। তাহলে সহজে অনুমান করা যাবে যদি ছোট কাপ সাইজ-ই আপনার জন্য উপযুক্ত কি-না?

স্তন এবং ব্রা এর কাপ সাইজের সঠিক মাপ নির্ধারণের জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরন করুণ –

ধাপ ১: ব্যাণ্ডের সাইজের মাপ নির্ধারণ:
নিঃশ্বাস ত্যাগ করুন, ফুসফুস থেকে সমস্ত বাতাস বের করে দিন। এবার মেঝের সাথে সমান্তরাল করে বুকের
চারদিকে ফিতা দিয়ে বক্ষদেশের নিচে অর্থাৎ যেখানে ব্রা শেষ হয়ে গেছে, সেখানে মেপে নিন। দশমিক সংখ্যা এলে তার কাছাকাছি পূর্ণ সংখ্যা ধরবেন। যেমন, ২৮.৫ ইঞ্চি বা এর কম হলে ২৮ ইঞ্চি ধরবেন। ২৮.৬ ইঞ্চি বা এর বেশি হলে ২৯ ধরবেন। সংখ্যাটা জোড় হলে, তার সাথে ৪ যোগ করবেন। সংখ্যাটা বিজোড় হলে, তার সাথে ৫ যোগ করবেন।

ধাপ ২: ব্রার কাপ সাইজের মাপ নির্ধারণ:
সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে, হাত দুদিকে ছেড়ে দিয়ে, ব্রা এর উপরে যেখানে সর্বোচ্চ উঁচু, সেখানের মাপ নিন। খেয়াল রাখবেন যাতে মাপার সময় ফিটা মেঝের সমান্তরাল থাকে, কোথাও উঁচু- নিচু যেন না হয়। দশমিক সংখ্যা এলে তার কাছাকাছি পূর্ণ সংখ্যা ধরবেন। যেমন, ৩৪.৫ ইঞ্চি বা এর কম হলে ৩৪ ইঞ্চি ধরবেন। ৩৪.৬ ইঞ্চি বা এর বেশি হলে ৩৫ ধরবেন।

ব্রা মেয়েদের কত বছর বয়স থেকে পরা উচিত

ব্রা – shusthodeho.net

ধাপ ৩: ব্রার সাইজের মাপ নির্ধারণ:
কাপের সাইজের মাপ (ধাপ ২) থেকে ব্যাণ্ডের সাইজের মাপ (ধাপ ১) বিয়োগ দিন। এই সংখ্যাটা দিয়েই পেয়ে যাবে কাপের সাইজ। নিচের টেবিলে দেখে নিন।

উদাহরণ:
ব্রার কাপ সাইজ নির্ধারণের স্টেপ#১: ব্যাণ্ডের সাইজের মাপ (২৮+৪=) ৩২
ব্রার কাপ সাইজ নির্ধারণের স্টেপ#২: কাপের সাইজের মাপ ৩৫
ব্রার কাপ সাইজ নির্ধারণের স্টেপ#৩: ৩৫-৩২=৩, অর্থাৎ “সি”

তাহলে, স্তন বা ব্রার কাপ সাইজ হবেঃ
“৩২সি”

পার্থক্য: কাপ সাইজ:
০”-১/২” AA
১/২”- ১” A
২” B
৩” C
৪” D
৫” DD or E
৬” DDD or F
৭” G
৮” H
৯” I
১০” J
A = ছোট
B = মাঝারি
C = বড়
D = বেশি বড়
E = অনেক বেশি বড়

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *